সাঘাটায় নিখোঁজের ৫ দিন পর সেপটিক ট্যাংকে মিললো গৃহবধূর লাশ


গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় নিখোঁজের পাঁচ দিন পর সেপটিক ট্যাংকের ভেতর থেকে পারভীন আক্তার (২৫) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ রোববার দুপুরে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় পারভীনের স্বামী সাইফুল, তাঁর প্রথম স্ত্রী পারভীন খাতুন, শ্যালক আবদুল করিম ও রানা মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ।

পারভীনের পরিবার ও পুলিশ জানায়, সাঘাটা উপজেলার কচুয়া ইউনিয়নের ওসমানের পাড়া গ্রামের পারভীনের সঙ্গে উপজেলার শ্যামপুরের বকুল মিয়ার বিয়ে হয়। সেখানে পারভীনের ছয় বছরের এক ছেলেসন্তান আছে। প্রায় দুই বছর আগে সাঘাটা উপজেলার কামালেরপাড়া গ্রামের সাইফুল ইসলাম পারভীন আক্তারকে তাঁর স্বামীর বাড়ি থেকে জোর করে তুলে এনে দ্বিতীয় বিয়ে করেন।

গত ২৫ জুলাই থেকে পারভীনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি তাঁর পরিবারের সদস্যরা। পরে পুলিশ সাঘাটা উপজেলার বসন্তেরপাড়া গ্রামে সাইফুলের প্রথম স্ত্রী পারভীন খাতুনের খালার বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে রোববার দুপুরে পারভীনের লাশ উদ্ধার করে।

সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে পুলিশ সাঘাটা উপজেলার বসন্তের পাড়া গ্রামে সাইফুলের প্রথম স্ত্রী পারভীনের খালার বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে দুপুরে পারভীন আক্তারের লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পারভীনের স্বামী সাইফুল, তাঁর প্রথম স্ত্রী পারভীন, আবদুল করিম, রানা মিয়াসহ চারজনকে আটক করেছে।

সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, আটক সাইফুল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

No comments

Theme images by A330Pilot. Powered by Blogger.