গাইবান্ধায় এসআইসহ ৪ পুলিশ সদস্য ক্লোজড


গাইবান্ধায় হাতকড়াসহ পুলিশের কাছ থেকে আসামি পালাতে গিয়ে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত হওয়ার ঘটনায় সুন্দরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাজু আহম্মেদসহ চার পুলিশ সদস্যকে ক্লোজড করা হয়েছে। শুক্রবার (৩ জুন) রাত ১২টায় গাইবান্ধা সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর) খায়রুল আলম বিষয়টি জানান।

ক্লোজড হওয়া চার পুলিশ সদস্যরা হলেন, সুন্দরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাজু আহম্মেদ। কনস্টেবল শাহানুর রহমান, মোস্তাফিজার রহমান ও নারী কনস্টেবল নার্গিস বেগম।

তিনি জানান, দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে চার পুলিশ সদস্যকে ক্লোজড করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। এদের মধ্যে একজন নারী কনস্টেবল রয়েছেন। এছাড়া ঘটনাটি তদন্তে একটি তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এরআগে, ২৫ মে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে আসামি রিপন চন্দ্র দাস বগুড়া জেলায় পালিয়ে যায়। পরে এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা রিপনকে আসামি করে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার (১ জুন) দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ বগুড়ার কাহালু উপজেলার একটি বাসা থেকে অপহৃতাকে উদ্ধারসহ আসামি রিপনকে গ্রেফতার করে। পরে একটি মাইক্রোবাসে করে ভিকটিম ও রিপনকে সুন্দরগঞ্জে আনা হচ্ছিলো। এসময় সন্ধ্যার পর ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে রিপন প্রসাব করার কথা বললে পুলিশ তাকে নামায়। পরে রিপন দৌড়ে পালাতে গিয়ে ট্রাকের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই মারা যান।

রিপন চন্দ্র দাস সুন্দরগঞ্জ উপজেলার হাতিয়া গ্রামের বাবলু চন্দ্র দাসের ছেলে।

No comments

Theme images by A330Pilot. Powered by Blogger.